Home » jana Ojana » সানি পর্ন দুনিয়া থেকে অবসর নেবার পর ভয়ানক এই কাজটি করে মাসে কোটি কোটি ইনকাম করেন…!!

সানি পর্ন দুনিয়া থেকে অবসর নেবার পর ভয়ানক এই কাজটি করে মাসে কোটি কোটি ইনকাম করেন…!!

খারাপ অতীত যে পাথেয় হতে পারেনা কখনই তার জ্বলজান্ত প্রমাণ দিয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী সানি লিওন। যার নামের আগে এখন বলিউড অভিনেত্রী কথাটা বসাতে গেলে সাত পাঁচ ভাবতে হয়না।

 

তবে, একবার ভেবে নিতে হয় পর্নস্টার কথাটা বসাতে গেলে। সে দুনিয়া যে তিনি ছেড়ে দিয়েছেন বেশ কয়েকবছর আগে সেটা তার ভক্তদের অনেকেরই জানা। পর্ন ইন্ডাস্ট্রিতে তার ছেড়ে আসা সেসব দিন কিংবা ছেড়ে আসা সেসব কাজ ঠিক নাকি ভুল সে বিতর্কে না গিয়েও বলা চলে বর্তমানে বলিউডে অভিনয় করে বেশ ভালো সুনামই কুড়িয়েছেন তিনি।

 

এক মিডিয়ার দর্শক ছেড়ে আরেক মিডিয়ার দর্শক ধরা এই যাত্রা নিতান্তই সহজ না হলেও তা করতে সচেষ্ট হয়েছেন সানি এটুকুতো বলাই চলে। জিসম ২ দিয়ে হিন্দি সিনেমা করা শুরু করলে তারপরও করেছেন বেশ কয়েকটি। বড় বাজেটের সিনেমাতেও সাড়া ফেলেছেন। বর্তমানে অভিনেত্রীর আস্তানা মুম্বাই। আর এই মুম্বাইতেই অভিনয়ের পাশাপাশি আরও কিছু উদ্যোগ সম্প্রতি শুরু করেছেন তিনি।

 

সামাজিক কাজে বরাবরই দেখা যেত সানিকে। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। মুম্বাইতে এক এনজিও চালাচ্ছেন তিনি। অবশ্য তা নিতান্তই প্রচার মাধ্যমের আলো থেকে একটু দূরে থেকেই। তবে, উদ্যোগ অনেকটাই কার্যকরী। মূলত শিক্ষামূলক কর্মসূচী গ্রহণ করলেও পড়াশুনা, জামা কাপড় এবং পেটের ভাতটা’ও জোগাড় করে দিচ্ছেন তিনি বহু শিশুর। শোনা যাচ্ছেম সবকিছু ধারাবাহিক ভাবে চললে নাকি একটা স্কুলও আপাতপক্ষে বানিয়ে ফেলবেন তিনি।

 

কিন্তু কি শেখাচ্ছেন সানি বাচ্চাদের? এই নিয়ে একটু জল্পনার সৃষ্টি হয়েছে। বেসিক স্টাডির সঙ্গে নাকি বাচ্চাদের পড়াশুনায় যোগ করেছে সমকামিতার মত শক্ত বিষয়ও। যা নিজের হাতে বাচ্চাদের পড়াচ্ছেন। এক্ষেত্রে অনেকে আবার দাবি তুলেছেন যে, যে বয়সে বাচ্চাদের ‘এবিসিডি’ পড়ার কথা সেইবয়সে সমকামিতার মতন কঠিন বিষয় কেন! তারা কি আদও বুঝছে?

 

এক্ষেত্রে অবশ্য সানির মত পুরোপুরি ভিন্ন। তার মতে, ‘ছোটো থেকে ব্যপারটা তাদের বোধগম্য করে তুললেই পরবর্তীতে তাদের কাছে ব্যপারাটা অনেক সহজ হয়ে উঠবে।’

 

আরও বলেছেন যে, “জানি এটা সবাই বুঝবে না তাই আমি ওতো ঘটা করে ব্যপারটা দেখাতেও চাইনি, আমার লক্ষ ওদের শেখানো প্রচার করা নয়।” এরকম বলে থেমে সানি থেমে গেলেও বুদ্ধিজীবী মহল কিন্তু থামেননি। তাদের একাংশ কিন্তু সমালোচনা মুখর। তবে সেসব দিকে কান দিচ্ছেন না এখন সানি এখন বাচ্চাগুলোর ভবিষ্যতের দিকেই চেয়ে সে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*
*